শিরোনাম :
কচুয়ায় চেতনা যুব নারী সংস্থার উদ্যোগে এতিম ও গরীব শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাসামগ্রী বিতরণ বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে বাধা সৃষ্টিকারী পাকিস্তানী প্রেতাত্তাদের স্বপ্ন পুরন হয়নি হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি সীতাকুণ্ডে সন্ত্রাসী হামলায় দুই যুবক গুরুতর আহত বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আব্বাস আলী খান স্মরণে নাইট ক্রিকেট টূর্নামেন্ট উদ্বোধন অনেকটা অর্থাভাবে চসিক; প্রকল্প গ্রহণেও নেই আগ্রহ প্রধানমন্ত্রীর “উপহার ঘর” চাচ্ছে গুরুদাসপুরের বঞ্চিত হরিজন সম্প্রদায়ের সদস্যরা কচুয়া প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদকের সুস্থ্যতায় দোয়া কামনা বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আব্বাস আলী খান স্মরণে নাইট ক্রিকেট টূর্নামেন্ট উদ্বোধন ব্যারিষ্টার মওদুদ আর নেই সিরাজদিখানে অবৈধ ভাবে খাল ভরাট, প্রশাসনের বাঁধায় বন্ধ

তুরষ্ক থেকে আনা পিঁয়াজের বস্তায় মিলছে পাথর

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৩ মার্চ, ২০২১
  • ৬৫ বার পঠিত

বাংলাদেশ ট্রিবিউন ডেস্ক

নিজ দেশে সংকটের কারণে ২০১৯ সালের মাঝামাঝি বাংলাদেশে পিঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে ভারত। অস্থির হয়ে ওঠে বাংলাদেশের পিঁয়াজের বাজার। ২৯ সেপ্টেম্বর প্রথমবারের মতো ১০০ টাকায় পৌঁছায় দেশি পিঁয়াজের কেজি। নভেম্বর নাগাদ পিঁয়াজের কেজি ২৫০ টাকায় পৌঁছায়। দেশের সংকট মেটাতে প্রতিবেশী দেশ ভারত থেকে শর্তসাপেক্ষে পূর্বের এলসির পিঁয়াজ আমদানির পাশাপাশি মিয়ানমার, নেদারল্যান্ড ও তুরস্ক থেকে পিঁয়াজ আনতে শুরু করেন ব্যবসায়ীরা। চলতি বছরের শুরুতে ভারত থেকে পিঁয়াজ আমদানি শুরু হলেও দেশটির স্থানীয় বাজারে পিঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় অনেকে ব্যবসায়ী তুরস্কের পিঁয়াজ আমদানী করছে।
সম্প্রতি দেশটি থেকে প্রায় ৪০ টন পিঁয়াজ আসে চট্টগ্রাম বন্দরে। আমদানি করা এসব পিঁয়াজের বস্তায় মিলেছে পিয়াজ আকৃতির পাথর। এর মধ্যে ২৫ কেজির বস্তার মধ্যে অর্ধেক মিলছে পাথর। আর এসব পিঁয়াজ নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জের ব্যবসায়ীরা। তবে, ভোক্তা অধিকার সংগঠন ক্যাব বলছে, আমদানির নামে মানি লন্ডারিং করতেই এমন কারসাজি কি না তা খতিয়ে দেখা জরুরি।
খাতুনগঞ্জের ব্যবসায়ীরা জানান, ২০১৯ সালে পিঁয়াজের দাম বেড়ে গেলে তুরস্ক থেকে পিঁয়াজ আমদানি শুরু করেন আমদানিকারকরা। দেশটি থেকে সাদা ও লাল দুই রঙের পিঁয়াজ আসে। আগেও পিঁয়াজের বস্তায় পাথর পাওয়া গেছে তবে কম কিন্তু এবার লাল পিঁয়াজের ২০-২২ কেজির প্রতি বস্তায় ১০ থেকে ১২ কেজি পাথর পাওয়া গেছে।
এদিকে শুল্ক গোয়েন্দার প্রতিবেদনে আমদানি-রপ্তানির বিপরীতে বিপুল পরিমাণ অর্থপাচারের খবর প্রায়ই উঠে আসে। পিঁয়াজের নামে পাথর আনার সঙ্গে অর্থ পাচারের বিষয়টি জড়িত থাকতে পারে সন্দেহ করছেন সংশ্লিষ্টরা।
ভোক্তা অধিকার সংগঠন (ক্যাব) সভাপতি গোলাম রহমান বলেন, পিঁয়াজের নামে পাথর আসা অপ্রত্যাশিত ঘটনা। আমদানিকারক ও রপ্তানিকারক মিলে অর্থ পাচারের সাথে জড়িত কি না সেটা খতিয়ে দেখা দরকার।
এ ব্যাপারে চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দরের উপ-পরিচালক মো. নাছির উদ্দিন বলেন, ঘটনাটি শুনেছি বাজার তদারকি করার সক্ষমতা আমাদের নেই। তারপরেও আমরা অবশ্যই বিষয়টা খতিয়ে দেখব।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
Developed by banglawebs